ব্যবসায় লাভবান হওয়ার অত্যাবশ্যকীয় কিছু টিপস

সুপ্রিয় দর্শক মন্ডলী আসসালামুয়ালাইকুম  আজকে আপনাদের সামনে আমি নিয়ে আসছি কিছু লাভবান ব্যবসা টিপস বর্তমান যুগে বিভিন্ন ব্যবসার বিভিন্ন পদ্ধতি চালু হয়েছে সব ব্যবসার লাভের অংক সমান নয় তাই অল্প পুজিতে কিভাবে অধিক লাভবান হওয়া যায় এ বিষয়টি এখন সবার চিন্তা করছে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ব্যবসা থেকে একসময় বড় ব্যবসা রূপান্তরিত হওয়া যায় ব্যবসার পদ্ধতি পণ্যের চাহিদা পণ্যের গুণগত মান ইত্যাদি বিষয়ের উপর আজকে আপনাদের বলব আমি এমন কিছু পদ্ধতি যা করলে আপনি যেকোন ধরনের ব্যবসায় লাভবান হতে পারবেন খুবই সহজে  ব্যবসায় সফল হওয়ার প্রথম ব্যবসায় সফল হওয়ার প্রথম উপায় হচ্ছে ব্যবসা সততা আপনি যদি সৎ ভাবে ব্যবসা করেন তাহলে আপনার জন্য এটি বয়ে আনবে দুনিয়া এবং আখিরাতে সফলতা কারণ সৎ ব্যবসায়ী যারা হবে তারা নবীগণ শহীদগণ এবং সিদ্দিক গণের সাথে হাশরের ময়দানে থাকবে তাই যে কোনো মূল্যে আপনাকে সততা ধরে রাখতে হবে আপনি ব্যবসায় অসৎ পন্থা অবলম্বন করলেই ভেজাল পণ্য প্রদান করলে কিংবা সেবার মান নিয়ে প্রতারণা করলে ব্যবসায় হয়তো কিছু টাকা লাভবান হতে পারেন কিন্তু তা আপনার ব্যবসার জন্য চূড়ান্ত ক্ষতি নিয়ে আসবে কারণ আপনার এই প্রতারণা কাস্টমার অচিরেই বুঝে ফেলবে এবং সেইসাথে আপনি ব্যবসার সুনাম নষ্ট করবেন দিন দিন কাস্টমার হারাতে থাকবেন তাই ব্যবসায় সফল হতে গেলে অবশ্যই অবশ্যই অবশ্যই ধরে রাখতে হবে নতুবা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়ে গেলেও এ গাছ নষ্ট হতে খুব বেশিদিন সময় লাগবে না দ্বিতীয় পর্যায়ে আমি আপনাকে বলব অবশ্যই আপনি পরিশ্রমী এবং উদ্যোগী হন কেননা পরিশ্রম এবং উদ্যোগ ছাড়া কোন ব্যবসায় সফলতা দেখে না আজকের এই বর্তমান বিশ্বে যত প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী আছে তাদের পেছনের ইতিহাস বা গল্প করি আমরা এটাই জানতে পারে যে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়ে যায়নি বরং তিনি তিনি তাদের ব্যবসার হয়েছে এবং এর পিছনে আছে তাদের অদম্য স্পৃহা শ্রম এবং ধৈর্য ব্যবসায়   লাভ-ক্ষতি থাকবে তাই কখনো ধৈর্য হারা হওয়া যাবে না তবে ক্ষতি কি পৌঁছানোর জন্য আপনাকে কিছু বিষয় অবশ্যই মনোযোগী হতে হবে এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো কি কারনে লাভ আসছেনা  লাভের অংক লাভের অংকটা কেন মিলছে না এর জন্য কিছু চেক লিস্ট তৈরি করে ফেলুন এরমধ্যে থাকবে আপনার পণ্যের চাহিদা কেমন আপনার পণ্যের গুণগত মান নিশ্চিত হচ্ছে কিনা বাজারে অন্যান্য প্রতিদন্দীদের তুলনায় আপনার পণ্যের গুণগত মান এবং মোড়কজাতকরণ এ কি কি ঘাটতি রয়েছে উৎপাদন প্রক্রিয়া সঠিকভাবে হচ্ছে কিনা উৎপাদন প্রক্রিয়ায় সময়ের সাথে  পুঁজি সঠিকভাবে ব্যয় হচ্ছে কিনা  কারণ ব্যবসায় লাভবান হতে হলে সঠিক সময়ে সঠিক ব্যবহার দরকার যেমন বর্ষার মৌসুমে  যদি আপনি শীতের পোশাকের পণ্য উৎপাদন করে তাহলে এটা নিতান্তই বোকামি হবে অর্থাৎ যে সময়ে পণ্যের যেরকম চাহিদা অনুযায়ী আপনাকে পণ্য উৎপাদনের নামতে হবে কাস্টমার এর চাহিদা মাথায় রেখে আপনাকে সঠিক সময়ে পণ্য উৎপাদন করতে হবে তারপর সময়ের চাহিদা অনেক তাই বলে বর্ষাকাল শুরু হবার পর যদি আপনি ছাতা উৎপাদন করেন  তবে তা বাজারজাত করতে করতে আপনার প্রতিদ্বন্দ্বীরা তাদের পূর্ব উৎপাদিত পণ্য দিয়ে বাজার ভরে ফেলবে ফলে আপনার বাজার ধরতে অনেক সমস্যা হবে  তাই কাল থেকে আপনার ছাতা  তৈরি  করতে হবে  সামনে আসছে সামনে রেখে ইত্যাদির ব্যবসা  তবে ব্যতিক্রমও প্রোডাক্ট কিংবা  ভালো মানের প্রোডাক্ট দরকার তার পরই আসছে তৃতীয় টিপস এটি হচ্ছে কস্ট বেনিফিট এনালাইসিস এটি হচ্ছে আপনার লাভ-ক্ষতির হিসাব অর্থাৎ আপনি যে পরিমাণ পুঁজি বিনিয়োগ করছেন সেই পরিমাণে আপনার লাভ আসছে কিনা নতুবা সবকিছুর পরে আপনাকে ক্ষতির মুখে দেখতে হবে তাই আপনি যদি ব্যবসায় লাভবান হতে চান তবে পুঁজি বিনিয়োগের পূর্বে আপনাকে লাভ-ক্ষতির হিসাব করতে হবে অর্থাৎ একটি পণ্যের উৎপাদন করতে গেলে প্রতি প্রোডাক্ট কি পরিমাণ প্রায় হচ্ছে সময়ের মূল্য গুদামজাতকরন এর মূল্য পণ্যের উৎপাদন খরচ খরচ খরচ ইত্যাদি সমস্ত কিছু হিসাব-নিকাশ করে তার সাথে বাজারজাতকরণ খরচ সহ লাভ ক্ষতির অংক টা আপনাকে মিলাতে হবে তবে ব্যবসা সফলতার মুখ দেখবে